নর্থইস্ট-১
কলকাতা- ০
পেলের ৭৫ তম জন্মদিনে যে অসাধারণ ম্যাচ  গুয়াহাটি স্টেডিয়াম দেখল  তা সত্যি প্রশংসনীয়। প্রশংসা প্রাপ্য দুটি দলেরই। একের পর এক পাল্টা আক্রমণে জেরবার তারা। তবে তারই মধ্যে পরিবর্ত ফুটবলার হিসেবে এসে গোল করলেন নিকোলাস ভেলেয।
আজ দারুন খেলেছে কামারা। অসাধারণ কিছু পাস এসেছে তার পা থেকে।  ম্যাচের প্রথম অংশে অনেক গোলের সুযোগ আসলেও গোল আসেনি। গতি, ছন্দে মেতে  উঠেছিল কলকাতা আর নর্থইস্ট। প্রশংসা প্রাপ্য রেহেনাস এর। দুরন্ত কিছু অবশ্যম্ভাবী গোল হওয়া থেকে রক্ষা করেছে নিজের দলকে।
কলকাতাকে ডিফেন্সের চ্যাম্পিয়ন বলা হয়।  কিন্তু আজ বারবার আক্রমণের পরও গোলের হদিস পেল না তারা। তবে বলতে হয় আম্রিন্দার এর কথা। খুব দক্ষতার সঙ্গে নিজের দায়িত্ব পালন  করেছে। আজ যে ভাবে আম্রিন্দার খেলেছে তাতে তার দলকে আরও কিছু গোল খাওয়া থেকে বাঁচিয়েছে। নিজেকে উজার করে দিয়েছে। অসংখ্য পাস খেলেছে হাবাসের ছেলেরা। তবে বেশ কিছু ভাল সুযোগ নষ্ট করেছে তারা।  আর বলতেই হয় ভেলেয এর যে গোল এসেছে তা অর্ণব  মণ্ডলের দুর্বল ক্লিয়ারেন্সের জন্য। গ্যাভিলনের শট মিস।বোরার শট বাইরে। এইরকম অনেক সুযোগ হারিয়েছে কলকাতা।
হলুদ কার্ডও দেখেছে কয়েকজন। ন্যাটো, অর্ণব মণ্ডল, আন্তো। আজ ম্যাচ শেষের কিছু আগে পরিবর্ত হিসেবে নেমে গোলও করে হিরো অফ দি ম্যাচ নিকোলাস ভেলেয। বুদ্ধি দিয়ে খেলেছে আজ। আজকের ম্যাচের পর নর্থইস্ট ৮ থেকে উঠে এল ৬ এ। আর কলকাতা রইল ৪। তবে এ কথা বলতেই হয়, যে ভাবে খেলা এগোচ্ছে তাতে কারা প্রথম চার এ থাকবে তা বলা বেশ কঠিন।